বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

প্রিয় পাঠক কেমন আছেন নিশ্চয় আশা করি ভালো আছেন আমি তোমাদের দোয়ায় ভালো আছি আমি তোমাদের মাঝে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে চাচ্ছি আশা করি এটি তোমাদের খুবই ভালো লাগবে আজকের আলোচনার মূল বিষয়টি হচ্ছে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম এই আর্টিকেলটি যদি আপনি সম্পূর্ণভাবে লক্ষ্য করেন তাহলে নতুন বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পারবেন জানতে দেখুন।

ডাচ বাংলা রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম – বিস্তারিত দেখুন

বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যদি বাটন ফোন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে কিভাবে তৈরি করবেন নতুন বিকাশ একাউন্ট এই নিয়মটি এখন আমি সম্পূর্ণভাবে লিস্ট করে দেবো।

বাটন ফোন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে?

  • একটি বাটন ফোন
  • বিকাশ একাউন্ট খোলার কোড
  • ফাস্ট এবং লাস্ট নেম
  • ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার
  • বিকাশের নতুন পিন কোড
বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

জীবনে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য তো আপনার বাটন ফোনটি হাতে নিন এরপর *২৪৭# এই কোড ডায়াল করুন।

এরপর আপনি যে কল করার বাটন রয়েছে বাটন ফোনে এই বাটনে ক্লিক করুন এরপর আপনি দেখতে পাবেন আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করার জন্য বলা হবে অবশ্যই আপনাকে এখানে অপেক্ষা করতে হবে।

এরপর আপনি যে নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান সেই নাম্বারটি দিয়ে কল বাটনে ক্লিক করুন।

এরপর আপনার ভোটার আইডি কার্ডের যে সংখ্যাটি রয়েছে এটি দিতে হবে।

এরপর আপনার বিকাশ একাউন্ট এর কোন পাসওয়ার্ড দিবেন এটি দিতে হবে।

এরপর আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করার জন্য বলা হবে এরপর অটোমেটিক ২৪ ঘন্টার ভিতরে বাটন ফোনে বিকাশ একাউন্ট একটিভ হয়ে যাবে।

অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

এখন আমি আপনাকে দেখাবো কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খুলতে হয় তার জন্য নিজের স্টেপ গুলো দেখুন।

আপনি যদি অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে আপনাকে বিকাশ অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে হবে কিভাবে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করতে হয় এখন নিয়মটি দেখিয়ে দেওয়া হবে।

bkash Apps Download Offer – বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

বিকাশ এপস ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে গুগল প্লে স্টোর ওপেন করতে হবে এরপর লিখে ডাউনলোড করতে হবে বিকাশ ডাউনলোড করব এরপর আপনি সবার উপরে বিকাশ নতুন অ্যাপসটি দেখতে পাবেন এরপর ইন্সটল বাটনে ক্লিক করেন ইন্সটল করে নিবেন কিংবা আপনি নিচে একটি বাটন দেখতে পাচ্ছেন এ বাটনের ক্লিক করে যদি বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করেন তাহলে ১৫০ টাকা হিসাবে পেয়ে যাবেন।

বিকাশ অ্যাপ রেফার করার নিয়ম

উপরে দেওয়ার লিংক থেকে যদি আপনি বিকাশ এপস টি ডাউনলোড করেন তাহলে রেফার বোনাস হিসাবে আপনি পেয়ে যাবেন ১০০ টাকা কিংবা ১৫০ টাকা কিংবা আপনার বিকাশ একাউন্ট এর যদি রেফার করতে চান তাহলে আপনি বিকাশ এপস এর স্লাইডবারে প্রবেশ করুন এরপর ক্লিক করার পর আপনি লিংকে আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে বিকাশ রেফার করে ইনকাম করতে পারবেন।

বিকাশ অ্যাপ কিভাবে খুলবো – মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য আপনি বিকাশ অ্যাপসটি ওপেন করবেন দেখতে পাবেন বিকাশ লগইন এবং বিকাশ রেজিস্ট্রেশন দুটি বাটন এখান থেকে আপনি বিকাশ রেজিস্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করুন এরপর।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যে অপারেটরের সিম ব্যবহার করেন এবং যে নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান অবশ্যই এখানে আপনাকে বিকাশ করার নাম্বারটি দিতে হবে এরপর পরবর্তী যেটি দেখতে পাচ্ছেন এখানে ক্লিক করুন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

এরপর আপনি যে কোম্পানির সিম ব্যবহার করেন সে কোম্পানির লোগো ওপরে ক্লিক করতে হবে।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

এরপর আপনি যেই নাম্বারটি দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান সেই নাম্বারে একটি ওটিপি কোড ভেরিফিকেশন করার জন্য বিকাশ কোম্পানি থেকে দেওয়া হবে এটি দিতে হবে কিংবা আপনি যে ডিভাইস থেকে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান সেই ডিভাইসের সিম চালু করে রাখতে হবে।

এরপর আপনার ভোটার আইডি কার্ডের সামনের কপি এবং পিছনের কপি ছবি আপলোড করে দিতে হবে।

এরপর আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের সকল ডকুমেন্ট ঠিক আছে কিনা সেটি যাচাই করে পরবর্তী স্টেপে ক্লিক করুন।

এরপর বিকাশ একাউন্টের জন্য একটি নতুন পিন কোড যোগ করতে হবে বিকাশের নতুন যে পিন কোড দিবেন এটি অবশ্যই ৫ সংখ্যার হতে হবে।

এরপর ২৪ ঘন্টার ভিতরে আপনার বিকাশ একাউন্ট একটিভ করে দিবে বিকাশ কোম্পানি।

আমি যেভাবে প্রিয় পাঠক আমি যেভাবে আপনাদেরকে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম দেখিয়ে দিয়েছি ঠিক এভাবে করে আপনি ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

বিকাশ অ্যাপ এর সুবিধা – বিকাশ অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম

আপনি যদি বিকাশের ব্যবহার করেন তাহলে খুব সহজে আপনি মোবাইলে রিচার্জ করতে পারবেন এবং ক্যাশ আউট করতে পারবেন সেন্ড মানি করতে পারবেন করলে বিদ্যুৎ বিল দিতে পারবেন এবং আরো রয়েছে বিভিন্ন রকম সুযোগ-সুবিধা।

যদি বিকাশ একাউন্ট সংক্রান্ত তথ্যটি আপনার ভালো লাগে ফেসবুক কিংবা টুইটার কিংবা সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারেন যাতে করে আপনার বন্ধুরা জানতে পারে এবং রেফার করে বিকাশ থেকে টাকা আয় করতে পারে ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!